আইএস চেয়েছিল ৯/১১-এর পুনরাবৃত্তি করতে!

36
15th-august
Print Friendly
image-104431-1507381251অনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে হামলার মধ্য দিয়ে ৯/১১-এর পুনরাবৃত্তি করতে চেয়েছিল জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। তবে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (এফবিআই) এক গোয়েন্দার প্রচেষ্টায় জঙ্গিদের সেই চক্রান্ত প্রতিহত হয়েছে। আজ শনিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।
 
এফবিআইয়ের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, গত শুক্রবার নিউইয়র্ক হামলার পরিকল্পনার বিস্তারিত প্রকাশ করা হয়েছে। হামলার চক্রান্তের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রসহ পাকিস্তান এবং ফিলিপাইনের তিন নাগরিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়, আইএস জঙ্গিরা নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ার এবং সাবওয়ে সিস্টেমে বোমা বিস্ফোরণসহ হামলার পরিকল্পনা করেছিল। এ ছাড়া নির্দিষ্ট কনসার্টের আসরে সাধারণ নাগরিকদের গুলি করে হত্যার পরিকল্পনাও ছিল তাদের।
 
ওই তিন ব্যক্তি হামলার পরিকল্পনার জন্য একটি চ্যাট অ্যাপস ব্যবহার করতেন। তাদের মধ্যে একজন বলেছেন, তিনি পরবর্তী ৯/১১ সৃষ্টি করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এফবিআইয়ের ওই গোয়েন্দার প্রচেষ্টায় গত বছর আইএসের এই পরিকল্পনা প্রতিহত করা গেছে। এফবিআইয়ের ওই এজেন্ট নিজেকে আইএসের সমর্থক হিসেবে পরিচয় দিয়ে ওই তিন ষড়যন্ত্রকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করতেন। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ ওই তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে। ওই তিনজনের মধ্যে কানাডার নাগরিক আবদুর রহমান এল বাহনাসাইকে (১৯) ২০১৬ সালের মে মাসে নিউইয়র্ক থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর তালহা হারুন (১৯) যুক্তরাষ্ট্রের ও রাসেল সালিক (৩৭) ফিলিপাইনের নাগরিক।
 
আবদুর রহমান গত অক্টোবরে সাতটি সন্ত্রাসী হামলার সঙ্গে জড়িত থাকায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। ২০১৬ সালের এপ্রিলে ফিলিপাইনে রাসেল সালিক গ্রেপ্তার হন। এর পর একই বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তালহা হারুনকে। তাদের দুজনকেই যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
 
ফ্রান্সের প্যারিসে বাতাক্লাঁ কনসার্ট হলে এবং বেলজিয়ামে মেট্রোতে হামলার রেশ ধরেই ২০১৬ সালে রমজান মাসে ওই তিনজন নিউইয়র্কে হামলা চালানোর চক্রান্ত করেছিল। আবদুল রহমান এফবিআইয়ের ওই এজেন্টের কাছে টাইমস স্কয়ারের একটি ছবি পাঠিয়ে বলেছিলেন, আমাদের একটি গাড়িবোমা প্রয়োজন। তিনি ৯/১১-এর পুনরাবৃত্তি করতে চান।
 
আর তালহা হারুন জানিয়েছেন, হামলার জন্য সাবওয়েই হতে পারে উপযুক্ত জায়গা। হামলা চলাকালে তাদের গুলি শেষ হয়ে গেলে তারপর ‘আত্মঘাতী’ বিস্ফোরণ ঘটানো হবে। রাসেল সালিক একজন চিকিৎসক। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসীদের অর্থের জোগান দেওয়ার অভিযোগ আছে।
 
২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ারে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এতে তিন হাজারের কাছাকাছি মানুষ মারা যায়।
শেয়ার করুন ...Share on FacebookShare on VKShare on YummlyBuffer this pageShare on Google+Tweet about this on TwitterPin on PinterestShare on LinkedInShare on RedditPrint this pageEmail this to someone